1. admin@bomkesh.news : admin :
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন

রক্তনালির ব্লকে আর কাটতে হবে না হাত-পা

  • আপডেট সময় : বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২
  • ৭৬ বার পঠিত

রক্তনালির ব্লকের কারণে আর কেটে ফেলতে হবে না হাত, পা এবং আঙ্গুল। অপারেশন ছাড়াই চিকিৎসার মাধ্যমে রোগীদেরকে অঙ্গহানি থেকে রক্ষা করা সম্ভব হচ্ছে বলে ‘আপডেট অব ভাসকুলার সার্জারি’ বিষয়ক সেমিনারের বক্তারা এ কথা জানিয়েছেন।

সোমবার (৮ আগস্ট) দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ব্লক অডিটোরিয়ামে ভাসকুলার বিভাগ এ সেমিনারের আয়োজন করে।

সেমিনারে জানানো হয়, রক্তনালিসমূহের রোগের কারণে মানুষের অঙ্গহানি এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। যে রোগীদের অপারেশন সম্ভব নয় এখন চিকিৎসার মাধ্যমে অপারেশন ছাড়াই তাদের অঙ্গ রক্ষা করা সম্ভব। রক্তনালির ব্লকের কারণে পায়ের গ্যাংরিন হয়। স্টেমসেল থেরাপি ও প্রোস্টাগ্ল্যান্ডিন থেরাপির মাধ্যমে নতুন রক্তনালি তৈরি করে বিনা অপারেশনে চিকিৎসা করে রোগীদের পঙ্গুত্ববরণ করা থেকে মুক্ত রাখা সম্ভব হচ্ছে।

ভ্যারিকোস ভেইন বা আঁকাবাঁকা শিরার চিকিৎসায় লেজার থেকে শুরু করে সব ধরনের আধুনিক চিকিৎসার সুযোগ রয়েছে এই বিভাগে। তাছাড়া আঁকাবাঁকা শিরা না কেটে আরএফএর মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা দেওয়া শিগগিরই চালু হবে। এছাড়া রক্তনালি ব্লক, এনিউরিজম, ডিভিটি, টিউমার, ম্যালফরমেশন ইত্যাদি চিকিৎসাসেবা চালু আছে। ভেনাসজনিত পায়ের আলসার ফোর লেয়ার ব্যান্ডেজ মাধ্যমে এই ক্ষত দূর করা সম্ভব হচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাসকুলার সার্জারি বিভাগের আধুনিক ডুপ্লেক্স স্ক্যান ল্যাবে প্রতিদিন গড়ে অন্তত ১০ জন রোগীর পরীক্ষা করা হচ্ছে। এছাড়াও বহির্বিভাগে ৫০-৬০ জন রোগী নিয়মিত চিকিৎসাসেবা নিচ্ছেন।

ছাত্রদের নিয়মিত শিক্ষাদান ছাড়াও ২ বছরে ৬ জন পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ভাসকুলার সার্জন তৈরি এই বিভাগটির সাফল্যের মধ্যে অন্যতম। দেশে একমাত্র বিএসএমএমইউতে চালু আছে ভাসকুলার সার্জারিতে বিশেষায়িত এমএস কোর্স।

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন, উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) অধ্যাপক ডা. একেএম মোশাররফ হোসেন, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান।

সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাসকুলার সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. সাইফ উল্লাহ খান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ভাসকুলার সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. রাকিবুল হাসান।

সেমিনারে বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়কে এমনভাবে গড়ে তুলছে যাতে সব ধরনের আধুনিক চিকিৎসা এখানেই দেওয়া সম্ভব হয় এবং রোগীদের চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যেতে না হয়। যেসব বিষয়ে এর আগে খুব একটা উন্নতি হয়নি সেসব বিষয়ের উন্নয়নে অধিক গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে প্ল্যাস্টিক সার্জারি, ভাসকুলার সার্জারি, থোরাসিক সার্জারি, ইনফার্টিলিটি ইত্যাদি।

উপাচার্য তাঁর বক্তব্যে ভাসকুলার সার্জারি বিভাগের সার্বিক উন্নয়নে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতিসহ সব বিষয়ে সহায়তার আশ্বাস দিয়ে বলেন, ভাসকুলার সার্জারি বিশেষজ্ঞ সংখ্যা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কার্যকরী উদ্যোগ নেওয়া হবে। চিকিৎসাসেবার সম্প্রসারণে স্থান বৃদ্ধির ক্ষেত্রেও কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বর্তমান প্রশাসনের আমলে গবেষণাকে বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2022 Bomkesh.News
Theme Customized By Shakil IT Park